করোনা আক্রান্ত রুমিন ফারহানা

ক’রোনা ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হয়েছেন বি’এনপি মনো’নীত সংর’ক্ষিত মহি’লা আস’নের সং’সদ স’দস্য ব্যারি’স্টার রুমিন ফারহা’না।আজ নি’জের ভেরিফা’ইড ফেসবু’ক আই’ডিতে রুমি’ন নিজে’ই ক’রোনা আ’ক্রান্ত হবার খ’বর প্র’কাশ করে লেখেনঃ‘আমার ক’রোনা পজে’টিভ, দো’য়া করবেন’

আরো পড়ুন…বিশ্বে সবার আগে নিজেদের তৈরি করোনা ভাইরাসের টিকা অনুমোদন দিয়েছে রাশিয়া। কিন্তু এই টিকার নিরাপত্তা ও কার্যকারিতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিশ্বের বিজ্ঞানীরা। তারা রাশিয়ার এমন কর্মকান্ডকে বেপরোয়া, বোকামি ও অনৈতিক বলে আখ্যায়িত করেছেন। এখনও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই টিকা অনুমোদন দেয় নি। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন প্রথম মহাকাশে স্পুটনিক স্যাটেলাইটের সফল উড্ডয়ন করে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল। এবারও তারা সেই ধারা অনুসরণ করেছে। সেই স্মৃতিকে মনে করিয়ে দিতে তারা এই টিকার নাম দিয়েছে ‘স্পুটনিক-ভি’। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, পশ্চিমা বিশ্বের সঙ্গে নতুন করে এক শীতল যুদ্ধে লিপ্ত রাশিয়া।

তারা এই টিকার কোনো পরীক্ষা, ডাটা প্রকাশ না করে আকস্মিকভাবে এটা অনুমোদন দিয়েছে। প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, তার এক মেয়ের ওপর প্রয়োগ করা হয়েছে এই টিকা। এতে তার দেহে এন্টিবডি তৈরি হয়েছে। এই টিকার মেয়াদ শরীরে দু’বছর পর্যন্ত থাকে। কিন্তু রাশিয়ার এমন দাবি সম্পর্কে বিজ্ঞানীরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। একজন বিজ্ঞানীতো পুতিনের এই উদ্যোগকে অনৈতিক বলে আখ্যায়িত করেছেন। বলেছেন, যথাযথ পরীক্ষা ছাড়া এই টিকা হতে পারে জনস্বাস্থ্যের জন্য বিপর্যয়কর। অন্য এক বিশেষজ্ঞ বলেছেন, যেসব টিকা অধিক অনিরাপদ ও কম কার্যকর এমন টিকার ব্যবহারের ফলে যে ক্ষতি হবে, তা বর্তমান সমস্যাকে আরো অপরিসীম পর্যায়ে নিয়ে যাবে। তা সত্ত্বেও রাশিয়া দাবি করেছে, এরই মধ্যে কমপক্ষে ১০০ কোটি ডোজের জন্য ২০টি দেশ থেকে অর্ডার পেয়েছে তারা। ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রড্রিগো দুতের্তে কয়েক লাখ ডোজ কেনার চুক্তি করেছেন। রাশিয়ান কর্মকর্তাদের মতে, আগেই এই টিকা কিনতে আগ্রহ দেখিয়েছে ভারত, ব্রাজিল ও সৌদি আরব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *