এবার বাংলাদেশি বাজারে কমছে সোনার দাম

দেশের বাজারেও কমবে সোনার দাম। আজ অথবা কাল দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম কমানো হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।সূত্র জানিয়েছে, ভরিতে প্রায় পাঁচ হাজার টাকার মতো দাম কমতে পারে। দাম কমানোর লক্ষ্যে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করেছে।বাংলাদেশের বাজারে কী দামে স্বর্ণ বিক্রি হবে তা নির্ধারণ করে দেয় বাজুস। বিশ্ববাজারে দাম বাড়া-কমার ওপর নির্ভর করে এই দাম নির্ধারণ করা হয়।

সাধারণত বিশ্ববাজারের সাতদিনের দামের গড় ভিত্তিতে কী পরিমাণ দাম বাড়ানো না কমবে সেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।বিশ্ববাজারে অস্বাভাবিক দাম বাড়ার প্রেক্ষিতে গত ৬ আগস্ট থেকে দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়েছে। নতুন দাম অনুযায়ী, ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম চার হাজার ৪৩২ টাকা বাড়িয়ে নির্ধারণ করা হয় ৭৭ হাজার ২১৬ টাকা।

২১ ক্যারেটের স্বর্ণ ৭৪ হাজার ৬৬ টাকা, ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ ৬৫ হাজার ৩১৮ টাকায় ও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫৪ হাজার ৯৯৬ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এই দামেই এখন দেশের বাজারে স্বর্ণ বিক্রি হচ্ছে।বাংলাদেশে যখন স্বর্ণের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয় তখন বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ২ হাজার ৩৪ ডলার। এরপর তা আরও বেড়ে ২ হাজার ৭৫ ডলার পর্যন্ত ওঠে। তবে গত শুক্রবার থেকে বিশ্ববাজারে স্বর্ণ পতনের মধ্যে পড়েছে।

দফায় দফায় দাম কমে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৯০০ ডলারের নিচে নেমে এসেছে। এর মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার একদিনে রেকর্ড ১১২ ডলার কমে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম। বুধবারও দরপতনের ধারা অব্যাহত রয়েছে। এখন পর্যন্ত প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ২১ ডলার কমে ১ হাজার ৮৯৫ ডলারে নেমে এসেছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ স্বর্ণের দাম বাড়ানোর পর বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম প্রায় দেড়শ ডলার কমে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *