অবস্থা আ’শঙ্কাজনক, ঢাকায় আনা হচ্ছে সেই ইউএনওকে

স’ন্ত্রাসী হা’মলায় গু’রুতর আ’হত দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজে’লা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় আনা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে ঢাকায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর আগে বুধবার (৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত আড়াইটা

থেকে ৩টার মধ্যে ওয়াহিদা ও তার বাবা ওমর আলী শেখকে কোপায় দু’র্বৃত্তরা। ওয়াহিদা খানমকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। পরে রংপুর মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়। সেখান থেকে বেস’রকারি হাসপাতাল ডক্টরস ক্লিনিকের আইসিউতে রাখা হয় তাকে। এরপর অবস্থা বেশি গু’রুতর হওয়ায় ঢাকায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ডক্টরস ক্লিনিকের অতিরিক্ত পরিচালক মেরাজুল মুরসালিন জানিয়েছেন, ওয়াহিদা খানমের অবস্থা আ’শঙ্কাজনক। ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে ঘোড়াঘাট থানার ওসি আমিরুল ইসলাম বলেছেন, বাড়ির পেছনে ভাঙা ভেন্টিলেটর দিয়ে দু’র্বৃত্তরা ঘরে প্রবেশ করে। এ কাজে তারা একটি মই ব্যবহার করে। বাড়ির পেছনে মইটি পাওয়া গেছে। জানা যায়, নওগাঁ থেকে মাঝে মাঝে মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসেন তিনি। ওয়াহিদা

খানমের স্বামী রংপুরের পীরগঞ্জে উপজে’লা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে কর্মরত আছেন। দিনাজপুরের জে’লা প্রশাসক মাহমুদুল আলম জানান, আনুমানিক রাত ৩টার দিকে ঘরের ভেন্টিলেটর দিয়ে এক যুবক প্রবেশ করে। প্রথমে ওই যুবক তার বাবাকে আ’হত করে পাশের ঘরে আ’টকে রাখে। পরে ওয়াহিদা খানমের ও’পর হা’মলা চা’লায়। এলোপাতারিভাবে তাকে কু’পিয়ে পা’লিয়ে যায়। মূলত উপজে’লার নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমকে হ’ত্যার উদ্দেশ্যেই এ হা’মলা চা’লানো হয়েছে বলে জানান জে’লা প্রশাসক।