কুয়েত প্রবাসীদের ফেরত আনা হবে ৩ ধাপে

প্রবাসীদের ৩ ধাপে ফেরত আনা হবেঃ প্রথম ধাপে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আসবে – ডাক্তার, নার্স প্রসিকিউটর, এবং শিক্ষক!দ্বিতীয় ধাপে অগ্রাধিকার পাবে যাদের ফ্যামিলি কুয়েতে আছে …আর সর্বশেষ ধাপে আসবে কুয়েতের অন্যান্য আকামাধারী প্রবাসীরা …বিঃদ্রঃ যে সকল প্রবাসীদের দেশে থাকাকালীন আকামা শেষ হয়ে গেছে তাদের আকামা পুনরায় রিনিউ করার এবং কুয়েতে প্রবেশে ব্যাপারে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে অনুরোধ ইতিবাচক কিছু আসতে পারে ইনশাআল্লাহ -?ইয়া আল্লাহ তুমি সকল প্রবাসীদের কে ভালো রিজিকের ব্যবস্থা করে দাও।সূত্রঃ আল-কাবাস পত্রিকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের প্রতিক্রিয়া অনুসারে প্রবেশের প্রক্রিয়াটি অবশ্যই তিনটি পর্যায়ে হওয়া উচিত, যেখানে অগ্রাধিকার দেওয়া হয় দেশের প্রথম যে পর্যায়ে চাকরী, নার্স, বিচারক, প্রসিকিউটর এবং

শিক্ষকের প্রয়োজনের দ্বিতীয় পর্যায়ে রয়েছে তাদের দ্বিতীয় পরিবারে যারা কুয়েতে বসবাস করছেন পরিবার এবং 22 টি অনুচ্ছেদে (নির্ভরশীল ভিসা) বা পরিবারের প্রধানদের আবাসনের অনুমতি রয়েছে তাদের অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।যারা নিবন্ধের অনুচ্ছেদ অনুসারে আবাসের অনুমতি নিয়েছেন এবং তাদের স্ত্রী ও শিশুরা কুয়েতে রয়েছেন, তৃতীয় স্তর এবং শেষ পর্যায়টি যারা কুয়েতে আসার অপেক্ষায় রয়েছেন তাদের জন্য।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় তার সুপারিশগুলি বিদেশ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে জমা দিয়েছিল এই বিষয়ে, তবে এই সুপারিশগুলি উন্নয়ন অনুসারে পর্যালোচনা ও সংশোধন সাপেক্ষে হবে।যারা বিদেশে আটকা পড়েছে তাদের বিদেশের বাসস্থান পুনর্নবীকরণ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিদেশ মন্ত্রনালয়ের চিঠিতে একটি রেক যাদের নতুন ভিসা দেওয়া হয়েছিল এবং যাদের

নতুন কাজের চুক্তি ছিল তাদের জন্য একটি ব্যবস্থা স্থাপন করার জন্য ইউস্ট। এছাড়াও মোফা তাদের মেয়াদোত্তীর্ণ রেসিডেন্সিগুলি পুনর্নবীকরণের জন্য একটি ব্যবস্থা স্থাপনের জন্য অনুরোধ করেছে, যাদের মালিকরা তাদের পুনর্নবীকরণ এবং কুয়েতে ফিরিয়ে আনতে চান।কুয়েত বাংলাদেশসহ ৩১ দেশের বিষয়ে প্রবেশের পূর্ণ বিবেচনা ১০ দিন পর পরঃ কুয়েতে ক’রোনা ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকেতে বাংলাদেশসহ ৩১ দেশের উপর প্রবেশের কুয়েত প্রবেশে নিশেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

তবে ঐ সিদ্ধান্ত আবার রিভিউ কথা বলেছে কুয়েত সরকার। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী ঐ দেশগুলিতে সংক্রমণ বৃদ্ধি ও হ্রাসের ভিত্তিতে ৩১ টি দেশ থেকে প্রবাসীদের কুয়েতে প্রবেশের বিষয়ে সিদ্ধান্ত পূর্ণ বিবেচনা করা হবে।প্রতি ১০ দিন পর পর প্রবেষের বিষয়টি সিদ্ধান্তটি পর্যালোচনা করা হবে, তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্টের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আগস্ট মাসের ১ তারিখ থেকে প্রবাসীদের কুয়েতে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে ঘোষণা দিয়ে, করোনা পরিস্থিতির কারণে পুনরায় প্রবেশ নিষিদ্ধ করে কুয়েত সরকার।

কুয়েত কতৃপক্ষ সুত্রে প্রকাশ,এই সিদ্ধান্তের মধ্যে বিচারপতি, চিকিৎসক, নার্স, শিক্ষকদের মতো নির্দিষ্ট প্রবাসীদের প্রয়োজন অনুযায়ী প্রথমে দেশে ফিরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে এমন অগ্রাধিকার দেওয়ার বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।কোভিড-১৯ এর কারণে যখন কুয়েতের নাগরিকদের ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রবেশে বাধা দেওয়া হয়েছিল, সরকার এই সিদ্ধান্তটি বুঝতে পেরেছিল এবং কোনও প্রতিবাদ জানায়নি।

দেশটির সার্বভৌম বিষয় এবং করোনা রোধে সিদ্ধান্ত হওয়ায় সব দেশই এই সিদ্ধান্তকে বুঝা উচিৎ, দেশের সুরক্ষাকে সামনে রেখে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিল।এদিকে কুয়েতে ৩১ দেশের প্রবাসীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ হওয়ায় মিশরসহ বেশ কয়েকটি দেশ কুটনৈতিক তৎপরতা চালায়।অন্যদিকে, ১৩ ই মার্চের আগে ইস্যু করা সমস্ত ধরণের ভিসা বাতিল বলে বিবেচিত হবে,যারা আবারও আসতে চান তাদের খুব দ্রুত শিগগির ঘো’ষিত শর্তাবলী মেনে আবেদন করতে হবে নিশ্চিত করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

About News24

Check Also

ক্যাসিনো সম্রাট মানিলন্ডারিং মামলায় গ্রেফতার

ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ওরফে ক্যাসিনো সম্রাট এবং তার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *