ভাইস চেয়ারম্যান এবং ছাত্রলীগ নেতার ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ও তিতাস উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ হোসেন ফকিরের ইয়াবা সেবনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়েছে। সোমবার (১০ আগস্ট) রাত থেকে ফেইসবুকে ইয়াবা সেবনের ভিডিওসহ ছবি প্রকাশের পর সমালোচনার ঝড় উঠে। সোমবার রাত ১২টায় চান্দিনা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তার ফেইসবুক আইডিতে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসেন ফকিরের ইয়াবা সেবনের একটি ভিডিও ও একটি ছবি আপলোড দেন। এসময় তিনি তার স্ট্যাটাসে লিখেছেন- ‘এইডা কি এডিট নাকি বাস্তব? জনাব ফরহাদ হোসেন ফকির কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ও তিতাস উপজেলার বিনা ভোটে ভাইস চেয়ারম্যান। সত্য হলে সকল দায়িত্ব হতে পদত্যাগ করুন, প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মাদক কে না বলুন’।

এ সময় ওই স্ট্যাটাসের সত্যতা নিশ্চিত করে শতাধিক নেতা-কর্মী কমেন্টস বক্সে মন্তব্য করতে দেখা গেছে। এছাড়া কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের শতশত নেতা-কর্মী ছবিসহ ভিডিও নিজ আইডি থেকে শেয়ার করে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে পদত্যাগ দাবী করেছেন।ফয়সাল আজাদ নামের এক ছাত্রলীগ নেতা বন্তব্য করছেন- ‘এমন কিছু কুলসিত লোকদের জন্য ছাত্রলীগ ও দলের বদনাম হচ্ছে। এখনি তাকে দল থেকে বহিস্কার করা উচিত’। ফয়সাল আজাদের মত এমন নেতা-কর্মী ধিক্কর জানিয়ে ফেইসবুকে প্রতিবাদ জানান।

বিষয়টি জানতে চেয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ও তিতাস উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ হোসেন ফকির এর ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবু কাউসার অনিক জানান- ভিডিওটি সবার মতো আমিও দেখেছি। সেখানে আমার বলার কিছু নেই। তবে কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বিষয়টি খতিয়ে দেখে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিবেন।কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মু. রুহুল আমিন জানান- বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখ জনক। যেহেতু বিষয়টি ছাত্রলীগের সেহেতু বাংলাদেশ ছাত্রলীগই তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

About News24

Check Also

ক্যাসিনো সম্রাট মানিলন্ডারিং মামলায় গ্রেফতার

ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ওরফে ক্যাসিনো সম্রাট এবং তার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *