করোনার মধ্যেই ছড়িয়ে পড়ছে আরও এক ভয়াবহ রোগ

মহামারী করোনা ভাইরাসের দাপট যখন অব্যাহত তখন আফ্রিকার কঙ্গোতে নতুন করে সংক্রমণ হচ্ছে ‘মানকি পক্স’ বা ‘বানর পক্স’ নামের রোগের। ‘মানকি পক্সে’ আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যে ১০ জনের মৃত্যুর খবরও পাওয়া গিয়েছে।সম্প্রতি কঙ্গোতে নতুন করে শুরু হওয়া ‘মানকি পক্স’ শনাক্ত করা হয়েছে ১৪১ জনের দেহে। স্থানীয় গণমাধ্যমের সূত্রে এমন খবর প্রকাশ করেছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি। খবরে

জানানো হয় এখন পর্যন্ত ১০ জনের মৃত্যু ঘটেছে কঙ্গোতে।দেশটির চিকিৎসকরা অবশ্য জানিয়েছেন শুরু থেকে এত প্রাদুর্ভাব ছিল না ভাইরাসটির। সাম্প্রতিক সময়ে প্রথমে ৩৩ জনের দেহে ‘মানকি পক্স’ শনাক্ত হবার পর তা ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। ফলে আক্রান্তের সংখ্যাও দিন দিন বেড়েই চলেছে।

মানকি পক্সের এই সংক্রমণের ঘটনা ইতোমধ্যেই নজরে এসেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার। করোনার এই সংকটকালীন সময়ে মানকি পক্স জরুরিভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে এমনটাই জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। জরুরি এক বুলেটিনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, ‘’বর্তমান করোনা ভাইরাসের মধ্যে চ্যালেঞ্চের মধ্যে রয়েছে গোটা বিশ্ব। এমন অবস্থায় মানকি পক্স নিয়ন্ত্রণে রাখাটা জরুরি।‘প্রসঙ্গত, গত পাঁচ বছর আগেই আফ্রিকাতে প্রথম মানকি পক্স শনাক্ত করা হয়েছিল। বর্তমানে কঙ্গোর সানকুরু এবং দক্ষিণ উবাঙ্গিতে এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেশি মাত্রায় রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

মানকি পক্স কী?মূলত একটি ভাইরাল সংক্রমণ হল মানকি পক্স। যা চিহ্নিত করা হয়ে ত্বকের উত্তেজক নোডুলগুলির মাধ্যমে। মানকি পক্স প্রাথমিকভাবে মুরগির পক্সের মতই লক্ষণ রয়েছে। যা জলযুক্ত নোডুলস। সংক্রমণ বাড়ার সাথে সাথে শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাল ছোট ছোট ফুঁসকুরি দেখা যায়। এর মূল উৎস হচ্ছে ইঁদুর, কাঠবিড়ালি এবং বানর। মানকি পক্স একটি বিরল রোগ হলেও যে কাউকেই আক্রান্ত করতে পারে। ২০১৯ সালে সিঙ্গাপুরেও এই রোগটি পাওয়া গিয়েছিল বলে জানা গেছে।

About News24

Check Also

যে কারণে তিন মাস রাত জেগে কবর পাহারা দেবে পরিবার!

ঝড় ও বৃ-ষ্টির সময় বিভিন্ন এলাকায় ব-জ্রপাতে মৃ-ত্যুর ঘ-টনায় যেমন আত-ঙ্ক বাড়ছে, সেই সঙ্গে বাড়ছে …